Bangla Govt to bring more unorganised sector workers under SSY

0
26

January 14, 2019

The State Labour Department is undertaking a massive awareness campaign to bring more workers from the unorganised sector under the ambit of Samajik Suraksha Yojana (Social Security Scheme).

At the Sramik Melas (Labour Fairs) being organised in all the districts of Bangla all through January, there will be camps for enrolment. The department will also conduct door-to-door campaigns.

According to the Labour Minister, more than 1 crore people have been brought under the SSY. The Trinamool Congress Government, in seven years (from 2011 to 2018) has allocated Rs 113 crore for the scheme. Compared to this, the Left Front Government, in the eleven years from 2000 to 2011, spent a meagre Rs 9 crore on similar schemes for unorganised sector workers.

It may be mentioned that the Trinamool Congress Government had merged five schemes into one in April 2017 and named the scheme as Samajik Suraksha Yojana. The convergence of the schemes has benefited people from different unorganised sectors and self-employed youths.

Under the scheme, unorganised workers are getting financial assistance of Rs 20,000 per annum for any ailment. The amount extends up to Rs 60,000 per annum in case of hospitalisation. There is also entitlement for provident fund after a worker attains the age of 60.


জানুয়ারী ১৪, ২০১৯

সামাজিক সুরক্ষা যোজনার প্রসারে উদ্যোগী শ্রম দপ্তর

রাজ্যের অসংগঠিত শ্রমিকদের সামাজিক সুরক্ষা যোজনার আওতায় আনতে ব্যাপক সচেতনতা অভিযান চালাচ্ছে শ্রম দপ্তর।

কলকাতায় দু’দিন ব্যাপী শ্রমিক মেলার উদ্বোধনে শ্রমমন্ত্রী বলেন, জেলায় জেলায় শ্রমিক মেলার আয়োজন করা হচ্ছে। সেখানে ক্যাম্প করা হবে সামাজিক সুরক্ষা যোজনায় নাম নথিভুক্ত করার জন্য। এছারার বাড়ি বাড়ি গিয়েও নাম নথিভুক্ত করা হবে। এই যোজনায় নথিভুক্ত শ্রমিকদের আর্জি জানানো হচ্ছে তাদের পরিচিত, আত্মীয়দের এই বিষয়ে সমস্তও তথ্য দিতে।

মন্ত্রী বলেন, ইতিমধ্যেই এই সামাজিক সুরক্ষা যোজনায় ১ কোটিরও বেশী শ্রমিককে নথিভুক্ত করা হয়েছে। ২০০০-১১ সালের মধ্যে তৎকালীন বাম সরকার শ্রমিকদের জন্য বিভিন্ন সামাজিক সুরক্ষা প্রকল্পের জন্য ব্যয় করেছিল মাত্র ৯ কোটি টাকা। আর অন্যদিকে গত সাত বছরে তৃণমূল কংগ্রেস সরকার এই সামাজিক সুরক্ষা যোজনায় ব্যয় করেছে ১১৩ কোটি টাকা।

প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালের এপ্রিল মাসে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পাঁচটি প্রকল্পের সংযুক্তিকরণ করে এই সামাজিক সুরক্ষা যোজনা চালু করেন। এই নতুন প্রকল্পের ফলে বিভিন্ন অসংগঠিত ক্ষেত্রের শ্রমিক এবং স্বনির্ভর যুবরা এতে উপকৃত হয়েছেন।

এই প্রকল্পের অধীনে শ্রমিকরা হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য প্রতি বছর ২০,০০০ টাকা থেকে ৬০,০০০ টাকা পর্যন্ত আর্থিক সহায়তা পেতে পারেন। এছাড়া, এই প্রকল্পে নথিভুক্ত শ্রমিকরা ৬০ বছর বয়সের পর প্রভিডেন্ট ফান্ডও পাবেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here