National-level study lauds Kanyashree’s role in reducing domestic violence on women

0
12

November 10, 2018

A recent national-level study conducted jointly by researchers from the Indian Institute of Management, Indore and Shiv Nadar University has appreciated the role played by the Bangla Government’s Kanyashree Scheme in reducing a young woman’s chances of being subjected to domestic violence.

The study delves into the causal link between early marriage and exposure to domestic violence, and underlines the importance of policies to tackle child marriage by incentivising families to continue girls’ education and delay their marriage.

In this respect, schemes like Kanyashree Prakalpa have been found to be highly effective. Kanyashree uses economic (conditional cash transfer), social and awareness-building methods to sensitise communities on the benefits of delayed marriage.

The effectiveness of Kanyashree, a brainchild of Chief Minister Mamata Banerjee, has been endorsed time and again, at both the international and national levels. In 2017, the scheme has been awarded the United Nations Public Service Award in the category of ‘Reaching the Poorest and Most Vulnerable through Inclusive Services and Participation’.

It also won the following honours:

  • United Nations WSIS Award 2016 in the category of ‘E-Government’
  • SKOCH Award for Smart Governance and SKOCH Award of Merit for 2015
  • Women’s Empowerment Award from the Bengal Government for 2014
  • CSI Nihilent Award for E-Governance for 2014-15, and
  • Manthan Award for Digital Inclusion for Development (South Asia and Asia Pacific) for 2014-15
  • Currently, there are approximately 52.3 lakh recipients of the monetary benefits under Kanyashree (as on Nov 9, 2018).

The State Government celebrates Kanyashree Dibas on August 14, as a day dedicated to the empowerment of the girl child. No other government in Bangla has done so much work for the girl child as the Trinamool Congress Government.


নভেম্বর ১০, ২০১৮

কন্যাশ্রীর সৌজন্যে বাংলায় কমেছে বাল্যবিবাহ, নির্যাতন - বলছে সমীক্ষা

অল্পবয়সী মেয়েদের ওপর পারিবারিক নির্যাতনের সংখ্যা কমেছে বাংলায়, সৌজন্যে কন্যাশ্রী প্রকল্প। ইন্ডিয়ান ইন্সটিটিউট অফ ম্যানেজমেন্ট, ইন্দোর এবং শিব নাদার বিশ্ববিদ্যালয়ের সাম্প্রতিক একটি গবেষণায় উঠে এসেছে এই চমকপ্রদ তথ্য। পারিবারিক নির্যাতন নিয়ে এই দুই প্রতিষ্ঠানের গবেষকরা দেশজুড়ে সমীক্ষা চালান। সমীক্ষার রিপোর্টে তারা এই বিষয়ে বাংলার কন্যাশ্রী প্রকল্পের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন।

বাল্য বিবাহের সঙ্গে পারিবারিক নির্যাতনের যে যোগসূত্র সেটিই নির্ধারণ করতে এই সমীক্ষা চালানো হয়। কন্যাশ্রীর মত যে সব সরকারি প্রকল্প বাল্যবিবাহ রোধ করে সেগুলির প্রভাব সম্বন্ধেও গবেষণা করা হয়। কন্যাশ্রীর অনুদানের ফলে মেয়েদের বাল্যবিবাহ রোধ ও পড়াশোনা চালিয়ে যেতে কিভাবে সুবিধা হয়েছে, সেটিই ছিল সমীক্ষার বিষয়।

এই দিক থেকে, কন্যাশ্রী প্রকল্প খুবই সফল হয়েছে। এই প্রকল্পের ফলে আর্থিক সহায়তা ছাড়াও পড়েছে সামাজিক প্রভাবও। সচেতনতা বৃদ্ধিও হচ্ছে মানুষের মধ্যে। ঠিক বয়সে মেয়েদের বিয়ে দেওয়ার উপকারিতা বুঝতে পারছে সাধারণ মানুষ।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মস্তিষ্কপ্রসূত কন্যাশ্রী প্রকল্প জাতীয় ও আন্তর্জাতিক স্তরে বারংবার প্রশংসিত হয়েছে। ২০১৭ সালে রাষ্ট্রসঙ্ঘ এই প্রকল্পটিকে United Nations Public Service Award First Prize সম্মানে ভূষিত করে।

অন্যান্য পুরস্কার:

  • ই-গভর্নেন্স বিভাগে কন্যাশ্রী প্রকল্প ‘ইউনাইটেড নেশনস ডব্লিউএসআইএস পুরস্কার ২০১৬ চ্যাম্পিয়ন (ডব্লিউএসআইএস অ্যাকশন লাইনসি-৭),
  • স্মার্ট গভর্ন্যান্সের জন্য স্কচ উইনার অ্যাওয়ার্ড এবং অ্যাওয়ার্ড অফ মেরিট ২০১৫,
  • ই-গভর্ন্যান্সের জন্য সিএসআইনিহিলেন্ট অ্যাওয়ার্ড ২০১৪-১৫,
  • নারী ক্ষমতায়নের জন্য পশ্চিমবঙ্গ সরকার কর্তৃক প্রদত্ত পুরস্কার, ২০১৪,
  • ই-উইমেন অ্যান্ড এমপাওয়ারমেন্টের বিভাগে মন্থন অ্যাওয়ার্ড ফর ডিজিটাল ইনক্লুসন ফর ডেভেলপমেন্ট (সাউথ এশিয়া অ্যান্ড এশিয়াপ্যাসিফিক) ২০১৪,
  • ভারত সরকারের প্রশাসনিক সংস্কার এবং জন-অভিযোগ দপ্তর কর্তৃক প্রদত্ত জাতীয় ই-গভর্ন্যান্সপুরস্কার ২০১৪-১৫,
  • ইউএনডব্লিউএমইএন অ্যান্ড আইটি ইউ প্রদত্ত ফাইনালিস্ট ইন জেমটেক (GEM Tech) পুরস্কার ২০১৬

৮ই নভেম্বর ২০১৮ পর্যন্ত ৫২.৩ লক্ষ মেয়ে কন্যাশ্রী প্রকল্পে আর্থিক সহায়তা পেয়েছে। প্রতি বছর রাজ্য সরকার ১৪ই আগস্ট ‘কন্যাশ্রী দিবস’ পালন করে। বাংলায় এর আগে কোনও সরকার কন্যা সন্তানদের জন্য এত কাজ করেনি যা গত সাত বছরে তৃণমূল কংগ্রেসসরকারের আমলে করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here